কোম্পানীগঞ্জে ১৪৪ ধারা, থমথমে অবস্থা বিরাজ

0
10

নোয়াখালী প্রতিনিধি।।
একই স্থানে সেতুমন্ত্রীর ভাই, বসুরহাট পৌর মেয়র মির্জা কাদের ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বাদল সমর্থকদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির ঘোষণাকে কেন্দ্র করে যে কোন ধরণের নাশকতা এড়াতে নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জে বসুরহাট পৌর এলাকায় ২২ ফেব্রুয়ারী সোমবার সকাল ৬.০০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬.০০ টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন। ফলে বসুরহাট পৌর এলাকাসহ সমগ্র কোম্পানীগঞ্জে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিকে ঘিরে অনাকাংখিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও প্রয়াজনীয় প্রস্ততি গ্রহণ করেছে। ১৪৪ ধারা জারির পর রোববার রাতে বসুরহাট বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। ইতিমধ্যে জেলা সদর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ কোম্পানীগঞ্জে অবস্থান করছে। এর আগে রোববার বিকেলে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জিয়াউল হক মীর স্বাক্ষরিত এক আদেশে ১৪৪ ধারা জারির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। এ আদেশের প্রেক্ষিতে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌর এলাকায় সব ধরনের সভা-সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবিতে সোমবার বেলা আড়াইটায় বসুরহাট পৌর সভার রূপালী চত্বরে শোক সভা আহবান করে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। এর আগে, একই স্থানে বিকেল তিনটায় সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়ে রাখেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল। গত শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সহ দলের কেন্দ্রীয় নেতাদেরকে নিয়ে আবদুল কাদের মির্জার মিথ্যাচারের প্রতিবাদে সোমবারের এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন বাদল।

এ ব্যপারে জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন জানান, কাউকে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করতে দেওয়া হবে না। কোথাও সরকারি আদেশ অমান্য করে সভা-সমাবেশ করার চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here