বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় এক এনজিও কর্মীকে ‘দলবেঁধে’ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে

0
2

অনলাইন ডেস্ক।।
২৫ বছর বয়সী এই তরুণী রোববার বিকালে ফকিরহাট থানায় চার জনের বিরুদ্ধে নারী শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা করেছেন।গত শনিবার রাতে ফকিরহাট উপজেলার লখপুর ইউনিয়নের জাড়িয়া মাইট কুমড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়।পুলিশ জানিয়েছে, বিকালেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষণে জড়িত অভিযোগে মো. মামুন শেখ (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। এ সময় তার কাছ থেকে ‘ধর্ষণের’ একটি ভিডিও উদ্ধার করা হয়।মামুন শেখ জাড়িয়া মাইট কুমড়া গ্রামের শের আলী শেখের ছেলে; পেশায় ভ্যান চালক।অভিযোগকারী নারীর বাড়ি খুলনার দৌলতপুরের আড়ংঘাটা গ্রামে। তিনি ফকিরহাটের নওয়াপাড়ায় ‘সাচ’ নামে একটি বেসরকারি সংস্থায় চাকরি করেন।মামলার বরাতে ফকিরহাট থানার ওসি আ ন ম খায়রুল আনাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, শনিবার রাতে জাড়িয়া মাইট কুমড়া গ্রামে এই এনজিও কর্মীর ভাড়া ঘরে একদল যুবক হানা দেয়। তাদের কড়া নাড়ায় ওই নারী দরজা খুলে দিলে তারা ঝাঁপিয়ে পড়ে এবং দলবেঁধে ধর্ষণ করে।ওই সময় তারা ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে বলেও মামলায় অভিযোগ করা হয়।ওসি আরও জানান, রোববার এই ঘটনা পুলিশ জানতে পেরে ওই নারীকে উদ্ধার করে। চার যুবকের বিরুদ্ধে মামলা নিয়ে তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়। মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে মো. মামুন শেখ নামে এজাহারনামীয় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।“তার কাছে থাকা মোবাইলফোনে ধর্ষণের একটি ভিডিও চিত্র জব্দ করা হয়েছে।”অন্যদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও তিনি জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here