হাসপাতালে ঢুকে ডাক্তারকে পেটালেন রিপ্রেজেন্টেটিভ

0
10

অনলাইন ডেস্ক।।
নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মেহেদী হাসানকে কর্তব্যরত অবস্থায় গালাগাল, হুমকি ও মারধর করেছেন আতাউল করিম নামে এক রিপ্রেজেন্টেটিভ। মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনার পর আতাউল করিম (২৮) ওরফে মাহ্ফুজ মোড়লকে আটক করেছে পুলিশ।

থানার অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো ওইদিন হাসপাতালের ১০৩নং কক্ষে সাধারণ রোগী দেখার কাজে নিয়োজিত ছিলেন ডা. মেহেদী হাসান। এ সময় ওষুধ কোম্পানির রিপ্রেজেন্টেটিভ আতাউল করিম তার ওষুধ রোগীদের ব্যবস্থাপত্রে লেখার জন্য ডাক্তারকে চাপ সৃষ্টি করেন। ডা. মেহেদী এতে অপারগতা প্রকাশ করলে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন তারা। এক পর্যায়ে ডাক্তারকে কিল-ঘুষি মেরে আহত করেন ওই রিপ্রেজেন্টেটিভ।

এ সময় ডাক্তারকে দেখে নিবে বলে হুমকিও দেন তিনি। ওই কক্ষে হৈ চৈ চলায় পার্শ্বে থাকা ডা. শ্রীকান্ত কর্মকার ও ডা. ওয়াদুদ সরকার আহত ওই ডাক্তারকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মো. মামুনুর রহমান বলেন, ঘটনা শোনার পর তাৎক্ষনিক অন্যান্য সহকর্মীদের নিয়ে আলোচনা শেষে ডাক্তার মেহদীকে তার নিরাপত্তার জন্য আতাউল করিমের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ দেই। অভিযোগের ভিত্তিতে মাহফুজকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়া মাহফুজ মোড়ল বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগের কোনো সত্যতা নাই। আমি ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলার জন্য তার কক্ষে গিয়েছি। উনার নানা অপকর্ম ঢাকতেই আমার ওপর দোষ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানার ওসি শাহ্ নূর-এ আলম সাংবাদিকদের কে বলেন, ডাক্তারের দেয়া অভিযোগটি আমলে নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে মাহ্ফুজ মোড়লকে গ্রেফতার করা হয়েছে।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here