May 15, 2021, 5:42 am

আজ রানা প্লাজা ট্রাজেডির ৮ বৎসর, দোষীদের শাস্তি চান রানা প্লাজার স্বজনরা

অনলাইন ডেস্ক।
নিহতদের স্মরণে শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা, মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের মধ্য দিয়ে স্মরণ করা হয়েছে রানা প্লাজা ট্রাজেডির হতাহতদের। শনিবার সকাল থেকেই বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন ও ক্ষতিগ্রস্তদের পরিজনরা ভিড় জমায় বিশ্বের ইতিহাসের ভয়াবহতম শিল্প দুর্ঘটনা হিসেবে পরিচিত রানা প্লাজার সামনে। তারা সেখানে নির্মিত বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।
একই সঙ্গে ক্ষতিপূরণ ও দায়ীদের বিচারের দাবি তুলেন শ্রমিকরা। শ্রমিক সংগঠনগুলো বলছে, যাদের অবহেলায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে, গত আট বছরেও তাদের শাস্তি নিশ্চিত হয়নি। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোও এখনো যথাযথ ক্ষতিপূরণ পায়নি। তাদের দাবি, যাদের কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে, ভবন মালিক সোহেল রানাসহ তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করা।
ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে যথাযথ ক্ষতিপূরণ দেওয়া। আহত শ্রমিক ও নিহত শ্রমিকদের স্বজনদের পুনর্বাসন করা। শ্রমিকদের আজীবন বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করা। রানা প্লাজার জায়গাটি অধিগ্রহণ করে শ্রমিকদের জন্যে হাসপাতাল নির্মাণ এবং ২৪ এপ্রিলকে ‘জাতীয় শ্রমিক শোক দিবস’ ঘোষণা করার দাবি জানান শ্রমিকরা।
জানা গেছে, সাভারে ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল নয় তলা ভবন রানা প্লাজা ধসে পড়েছিল। এটি ছিল দেশের পোশাক শিল্পে ঘটে যাওয়া সবচেয়ে বড় ট্র্যাজেডি। ভবন ধসে প্রাণ হারিয়েছিলেন হাজারেরও বেশি মানুষ। যাঁরা প্রাণে বেঁচে গেছেন, তাঁরা পঙ্গুত্ব নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন। দিনটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালন করেছেন রানা প্লাজার আহত ও নিহত শ্রমিকদের পরিবারের সদস্যেরা। তাঁদের সঙ্গে কর্মসূচিতে যোগ দেন বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন। বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশন, জাতীয় শ্রমিক লীগ, রানা প্লাজা গার্মেন্টস শ্রমকি ইউনিয়ন, ল্যাম্প পোস্ট, গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, গণমুক্তি গানের দল, বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতিসহ বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নের্তৃবৃন্দ, সাভার মডেল থানা, শিল্প পুলিশ-১ এবং হতাহত শ্রমিকদের পরিবারের সদস্যরা শহীদ বেদীতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish