June 22, 2021, 8:14 am

কেরানীগঞ্জ উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক।।
ধর্ম অবমাননার জিগির তুলে দিনাজপুরের পার্বতীপুর কুমিল্লার মুরাদনগরের সংখ্যালঘুদের আক্রমণ অগ্নিসংযোগ নারী নির্যাতন ও বাড়িঘর লুটপাটের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন, কেরানীগঞ্জ উপজেলা বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদ।
শনিবার (৭ নভেম্বর) সকাল ১১টায় কদমতলী কমান্ডার নুরুল ইসলাম চত্বর এলাকায় কেরানীগঞ্জ উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মদন মোহন সরকার বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধনে নেতৃত্বে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুজন কুমার দাস, কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি গোপাল সরকার, সাধারণ সম্পাদক নিপেন বর্মন, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এ্যাডভোকেট অনুপ বর্মন, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখড় চন্দ্র দাস, উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের প্রচার সম্পাদক নকুল চন্দ্র বর্মন, ভক্ত চন্দ্র বাড়ৈসহ উপজেলার হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদ সকল সদস্যরা এ সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন।
মিছিল শেষে বক্তব্যে কেরানীগঞ্জ উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি মদন মোহন সরকার বলেন, ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার, আমাদের দেশে সব ধর্মের মানুষ বসবাস করছি। আমাদের সরকারের নিকট আবেদন যারা দেশের সম্মান ক্ষুণ্ন করতে সংখ্যালঘুদের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও নারী নির্যাতন করেছেন তাদেরকে আইনের আওতায় আনতে হবে। সে যে দলের বা যে গোষ্ঠীর লোক হন কেন। আমরা সবাই সকল ধর্মের মানুষ ভাই ভাই এক সমাজে থাকতে চাই। তিনি দিনাজপুর, কুমিল্লার মুরাদনগরের হামলা নির্যাতনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish