May 15, 2021, 4:44 am

কোটচাঁদপুরে নারিকেল গাছ কাটতে বলায় হামলার শিকার,থানায় অভিযোগ

মোঃ শহিদুল ইসলাম, কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি।।
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার মোহনপুর গ্রামে জমির ওপর থেকে নারিকেল গাছ কাটতে বলায় পরিবারের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে স্থানীয় প্রতিবেশী শহিদুল ইসলাম সহ তার লোকজন।গত মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) উপজেলার কুশনা ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। জানা গেছে, কোটচাঁদপুর উপজেলার ৩নং কুশনা ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামের দিনমজুর আব্দুল মান্নান (৬২)ওয়ারিস সূত্রে পাওয়া বসতবাড়ির জমি দীর্ঘদিন ধরে শান্তিপূর্ন ভাবে ভোগ দখল করে আসছে।তারই সূত্র ধরে বসতবাড়ির জমি সীমানা নির্ধারনের লক্ষে গত ২০ই এপ্রিল ওই জমির পরিমাপ করতে গেলে দেখতে পান তার জমির ভিতরে প্রতিবেশী শহিদুল ইসলাম এর রোপনকৃত দুইটি নারিকেল পড়ে গেছে।
এমনবস্থায় আব্দুল মান্নান প্রতিবেশী শহিদুল ইসলাম কে নারিকেল গাছ দুইটি কেটে নেওয়ার কথা বললে তাৎক্ষণিক ক্ষিপ্ত হয়ে শহিদুল ইসলাম অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।এক পর্যায়ে দুজনার ভিতরে কথা কাটাকাটি শুরু হয়, এসময় শহিদুল ইসলাম এর সহযোগী আবুল কাশেম এর হুকুমে অন্যান্য সঙ্গী মুহিদুল ইসলাম, আব্দুল মালেক,শিমুল হোসেন,নাহিদ হোসেন,বিপুল হোসেন,শাহিনুর রহমান,মনিচুর রহমান ও সজিব হোসেন সহ সকলে জোট হয়ে বাদি আব্দুর মান্নান সহ তার ভাই আঃ রাজ্জাকের ওপর আক্রমণ করে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি মারতে থাকে,এক পর্যায়ে হত্যার উদ্দেশ্যে লোহার শাপল দিয়ে আঃ রাজ্জাকের মাথায় আঘাত করলে তাৎক্ষণিক আহত আঃরাজ্জাক মাটিতে লুটিয়ে পড়ে, ওই অবস্থায় তার ওপর লোহার রড ও বাঁশ দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে পিটাতে থাকলে আঃ রাজ্জাকের আর্তচিৎকারে গৃহিনী ভদিরননেছা এগিয়ে আসলে তার মাথায় আঘাত করলে সেও মাটিতে লুটিয়ে পড়লে, এসময় আঃ রাজ্জাকের ছেলে সোহাগ হোসেন,সেলিম হোসেন ও তার ভাই আঃমান্নানের ছেলে জিহাদ ছুটে আসলে শহিদুল সহ তার লোকজন লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র চাপাতি ডাসা নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালিয়ে তাদের সবাইকে মারাত্মক ভাবে রক্তাক্ত জখম করে। এসময় তাদের আর্তচিৎকারে প্রতিবেশী রেজাউল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, রোকনুজ্জাসমান সহ স্থানীয় আরও প্রতিবেশীরা ছুটে এসে মারামারিতে বাধা দিয়ে আহত সবাইকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য আসে।

এসময় আঃ রাজ্জাকের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে যশোর সদর হাসপাতালে প্রেরন করেন, কিন্তু তার অবস্থা আরও বেশি গুরুতর হওয়ায় যশোর থেকে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরন করেন এবং ওপর আহত ব্যক্তিরা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই গ্রামের একাধিক ব্যক্তি ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, আঃ মান্নান ও তার ভাই আঃ রাজ্জাক কে নিরীহ পেয়ে শহিদুল ইসলাম ও তার লোকেরা যে অমানবিক নির্যাতন করেছে, তা অত্যন্ত দুঃখজনক এবং অমার্জনীয় অপরাধ। তারা ঘটনার সাথে জড়িত শহিদুল ইসলাম ও তার সহযোগীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।
বর্তমানে ভুক্তভোগী আঃমান্নান ও আঃ রাজ্জাকের পরিবারের সকল কে শহিদুল ইসলাম সহ তার লোকজন নানা ভাবে প্রাননাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। যার কারনে ভুক্তভোগী সকলে আতংকিত ভাবে জীবনযাপন করছেন।এঘটনার প্রেক্ষিতে ভুক্তভোগী আহত আঃ মান্নান ও আঃ রাজ্জাকের চাচাতো ভাই সিরাজুল ইসলাম, কোটচাঁদপুর মডেল থানায় শহিদুল ইসলাম সহ তার লোকজনের নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish