টিকাদানে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে কেউ যেন সুযোগ না নিতে পারে

0
7

অনলাইন ডেস্ক।।
কোভিড ১৯-এর টিকাদানের সময় বিভ্রান্তি সৃষ্টি করে সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা চালানো হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এজন্য নেতাকর্মীদের সংবেদনশীল হওয়ার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, এই সময়টাতে কিছু মানুষ সুযোগ নিতে চাইবে। কেউ মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করবে। আমাদের কাজ হবে খুব সতর্ক থেকে মানুষের সেবা করা। প্রধানমন্ত্রী জানান, টিকার প্রথম চালান দেশে পৌঁছবে ২৫ জানুয়ারি। ভ্যাকসিনের সার্বিক প্রক্রিয়ায় থাকবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গতকাল বুধবার রাতে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভায় দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।
সভায় উপস্থিত একাধিক নেতা জানান, সম্প্রতি দেশের নানা জায়গায় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা অভ্যন্তরীণ কোন্দলে এবং নানা অপ্রীতিকর ঘটনায় জড়িয়েছেন। এদের প্রত্যেককে জবাবদিহিতার আওতায় আনা হবে বলেও হুশিয়ারি দিয়েছেন শেখ হাসিনা। সারাদেশ থেকে যেসব অভিযোগ এসেছে, তা বিভাগে দায়িত্বরত নেতাদের কাছে দিয়ে বৈঠকে শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিটি ঘটনার অনুসন্ধান করতে হবে এবং প্রয়োজনে সাংগঠনিক রীতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে। দলীয় শৃঙ্খলাবিরোধী কাজ করে কেউ রেহাই পাবে না।
আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য এবং সভাপতিম-লীর সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খান আমাদের সময়কে বলেন, আগে যারা বিদ্রোহী ছিলেন এবার আমরা তাদের মনোনয়ন দেইনি। যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ নেই, দলের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক এবং বিশেষ করে করোনাকালে মানুষের
পাশে দাঁড়িয়েছেন; তাদের দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। বেশ কয়েক নারীকে এবার প্রার্থী করা হয়েছে। অভিযোগের কারণে আগের বেশ কয়েক নারীকে এবার আর মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। তিনি জানান, বৈঠকে কোভিড-১৯ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। ২৫ জানুয়ারি করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম চালান দেশে পৌঁছবে। সেগুলো কীভাবে এবং কাদের আগে দেওয়া হবে, সে বিষয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়।
দলের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জার আবেগী বক্তব্য এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সাবেক ও বর্তমান মেয়র ইস্যুতে কোনো আলাপ হয়েছে কিনা জানতে চাইলে মনোনয়ন বোর্ডের আরেক সদস্য বলেন, তাদের নাম উল্লেখ করে কোনো আলোচনা হয়নি; তবে দলের সামগ্রিক দিক ধরে কথা হয়েছে। নেতাকর্মীদের আরও বেশি দায়িত্বশীল আচরণ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here