July 1, 2022, 1:40 pm

টেক্সাসের স্কুলে ঢুকে গুলি, ১৮ শিক্ষার্থী সহ নিহত ২১

অনলাইন ডেস্ক।
মঙ্গলবার আমেরিকার টেক্সাসের একটি স্কুলে ঢুকে এক বন্দুকবাজ ১৮ পড়ুয়া সহ মোট ২১ জনকে খুন করে। জানা গিয়েছে, অভিযুক্তের নাম স্যালভাডর রামস, বয়স ১৮।
ফের আমেরিকায় বন্দুকবাজের বিভীষিকা। মঙ্গলবার আমেরিকার টেক্সাসের একটি স্কুলে ঢুকে এক বন্দুকবাজ ১৮ পড়ুয়া সহ মোট ২১ জনকে খুন করে। জানা গিয়েছে, অভিযুক্তের নাম স্যালভাডর রামস, বয়স ১৮। ঘটনাটি ঘটেছে টেক্সাসের রব এলিমেন্টারি স্কুলে। মাত্র দশদিন আগেই আমেরিকার বাফেলোতে এরমই এক বন্দুকবাজের গুলি চলেছিল একটি সুপার মার্কেটে। সেই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল ১০ জনের। সম্প্রতি আরও বেশ কয়েকটি এমন ঘটেছে সেদেশে। এই আবহে প্রেসিডেন্ট বাইডেন খোদ প্রশ্ন তুলেছেন, ‘আর কবে আমেরিকা গান লবির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে।’

প্রেসিডেন্ট বাইডেন গতকালই পাঁচদিনের এশিয়া সফর শেষে আমেরিকায় ফেরেন। আর ফিরেই এই শুটিংয়ের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন বাইডেন। বাইডেন বলেন, ‘বিশ্বের কোথাওই প্রায় এরম ঘটনা ঘটে না। কেন? ঈশ্বরের নামে আর কবে আমরা জাতি হিসেবে গান লবির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াব।’ টেক্সাস শুটিংয়ের প্রেক্ষিতে জাতীয় শোক ঘোষণা করেন বাইডেন। তিনি জানান বুধবার সর্বত্র আমেরিকার জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা নাগাদ এই শুটিংয়ের ঘটনা ঘটে। জানা গিয়েছে, টেক্সাসের শুটিং কাণ্ডে মোট ১৮ জন শিশু মারা গিয়েছে। পাশাপাশি ৩ জন প্রাপ্তবয়স্কও প্রাণ হারিয়েছে এই ঘটনায়। পুলিশের গুলিতে শুটার খতম হয়। এদিকে এনকাউন্টারে দুই পুলিশকর্মীও জখম হন বলে জানা যায়। এই শুটিং চলাকালীন স্কুলে প্রায় ৫০০ পড়ুয়া উপস্থিত ছিল। এই স্কুলের পড়ুয়ারা লাতিন আমেরিকা থেকে আসা স্প্যানিংশ বংশোদ্ভূত। আর্থিক ভাবে তাদের পরিবার স্বচ্ছল নয়। পুলিশি তদন্তে জানা গিয়েছে, স্কুলে ২০ জনকে খুন করার আগে নিজের দিদাকে গুলি মেরে আসে সেই বন্দুকবাজ। কিন্তু বন্দুকবাজের উদ্দেশ্য সম্পর্কে এখনও ধোয়াঁশায় তদন্তকারীরা। এর আগে ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ডের একটি স্কুলে বন্দুকবাজের গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল ১৭ জনের। সেই ঘটনার পর গতকালকের এই শুটিং সবচেয়ে ভয়াবহ ঘটনা ছিল।
সুত্রঃ হিন্দুস্তান টাইমস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরও সংবাদ :