January 28, 2023, 1:18 pm

দর্শনা জয়নগর স্থলপথ দিয়ে সব ধরনের ভারতীয় ভিসা চালুর দাবিতে মানববন্ধন

মাত্র ৩৫ টাকায় দর্শনা জয়নগর স্থলপথ দিয়ে ভরতের কলকাতা ভ্রমন!

দর্শনা জয়নগর স্থলপথ দিয়ে সকল ধরনের ভিসা বন্ধ হওয়ায় কোটি কোটি টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে দুই দেশের সরকার।

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা জয়নগর – ভারতের গেদে চেকপোস্ট দিয়ে সড়ক পথে ভারতীয় ভিসা চালুর দাবিতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

সোমবার সকাল ১০ টার সময় দর্শনা নাগরিক কমিটির আয়োজনে, দর্শনা প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয় ।

মানববন্ধন কর্মসূচিতে ভারতীয় সব ধরনের ভিসা পুনরায় চালুর দাবি জানান স্থানীয় জনগণ ।

এসময় বক্তারা বলেন,বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের সকল স্থলবন্দর ও চেকপোস্ট সাময়িক বন্ধ ঘোষনা করা হয় দুই দেশের সরকারের পক্ষ থেকে ।

করোনা পরিস্থিত স্বাভাবিক হলেও , দেশের সকল বন্দর চালু করা হলেও বন্ধ রাখা হয়েছে দর্শনা জয়নগর চেকপোস্ট দিয়ে  ভারতীয়  সব ধরনের ভিসা ।

দেশের ২৫ জেলার মানুষ বিভিন্ন ভিসায় দর্শনা-গেদে স্থলপথে যাতায়াত করতে না পেরে বাধ্য হয়ে বেনাপোল দিয়ে ভারতে যাচ্ছেন। এতে একদিকে প্রচণ্ড গরমের মধ্যে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে। অন্যদিকে যাতায়াত খরচ লাগছে দ্বিগুণ থেকে তিনগুণ। আর দর্শনা থেকে ভারতের গেদে রেলস্টেশনে হেঁটেই যাওয়া যায়। তা ছাড়া দর্শনা থেকে কলকাতার দূরত্ব মাত্র ১০৭ কিলোমিটার। এতে অতিরিক্ত সময়
বাচে ও ভ্রমন যাত্রার ক্লান্তি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

করোনার সংক্রমণ দেখা দেয়ায় ২০২০ সালের ২৬ মার্চ দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলবন্দরের মাধ্যমে ভারতীয় মালামাল আমদানি এবং স্থলপথে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে ট্যুরিস্টসহ সকল ভিসার পাসপোর্ট যাত্রীদের যাতায়াত পুরোপুরি স্থগিত করা হয়েছিলো। কিছুদিন পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে দর্শনা আন্তর্জাতিক রেলপথে ভারত থেকে মালামাল আমদানি শুরু হয়। ২০২১ সালের ১৭ মে থেকে ভারতে আটকাপড়া বাংলাদেশীদের দর্শনা আন্তর্জাতিক স্থলপথের মাধ্যমে দেশে ফেরত আনার একটি নির্দেশনা জারি করা হয় সরকারের পক্ষ থেকে । একই বছরের সেপ্টেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে শুধুমাত্র মেডিক্যাল ও বিজনেস ভিসায় দর্শনা-গেদে হয়ে পাসপোর্ট যাত্রীরা যাতায়াত করতে পারবে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায় । চলতি বছরের ২৯ মে ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস দর্শনা আন্তর্জাতিক রেল স্টেশনের মাধ্যমে চলাচল শুরু করলেও অদ্যবদি দর্শনা-গেদে স্থলপথে বাংলাদেশীদের জন্য    ভিসা চালু হয়নি।

এতে দুর্ভোগে পড়েছে দেশের দক্ষিণ -পশ্চিম অঞ্চলের ২৫ জেলার মানুষ।

এদিকে বক্তারা বলেন , অবিলম্বে এই দাবি মানা না হলে বৃহত্তর কর্মসূচির হুসিয়ারী দেওয়া হয়েছে।

তবে ভারতীয়রা সব ভিসায় দর্শনা স্থলপথে যাতায়াত করছে। আন্তর্জাতিক নিয়মানুযায়ী দুই দেশের নাগরিকদের জন্য দুই রকম নিয়ম কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। এতে ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের সরকার বিপুল পরিমাণে কোটি কোটি টাকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

উক্ত  মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহফুজুর রহমার মনজু, বীরমুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী, দর্শনা নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব গোলাম ফারুক আরিফ, দর্শনা প্রেসক্লাবের সভাপতি মনিরুজ্জামান ধীরু সহ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরও সংবাদ :