October 1, 2022, 1:10 pm

নোয়াখালীতে মির্জা কাদেরের বিরুদ্ধে হেফাজতের বিক্ষোভ

নোয়াখালীতে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে হেফাজতে ইসলাম। ১৭ ফেব্রুয়ারী বুধবার বিকেলে জেলা শহর মাইজদীতে হেফজত ইসলাম, নোয়াখালী জেলা শাখার উদ্যোগে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ইসলাম বিদ্বেষী ও অশালীন বক্তব্য প্রত্যাহার, আলেমদের সম্পর্কে মিথ্যা বক্তব্য ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং মাদরাসা বন্ধের প্রতিবাদে এই বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। হেফাজতে ইসলাম, নোয়াখালরীর জেলা আমীর আল্লাম শিব্বির আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী। অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, নায়েবে আমীর মাওলানা নিজাম উদ্দিন, মাওলানা ছিদ্দিক আহমদ নোমান, মাওলানা নুরুল ইসলাম, মাওলানা কবির আহমদ, মাওলানা রুহুল আমিন চৌধুরীসহ প্রমূখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, মির্জা কাদের অবিলম্বে ওলামা ও ইসলাম বিদ্বেষী বক্তব্য প্রত্যহার, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং বন্ধ মাদরাসাটি খুলে দিয়ে জনতার কাতারে আসতে হবে এবং দায়িত্বশীলের মত বক্তব্য দিতে হবে। সকল আলেমের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় হেফাজতের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ বিক্ষোভ অব্যাহত থাকবে এবং আগামীতে আরো কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে।
বিক্ষোভ মিছিল শেষে হেফাজতের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
উল্লেখ্য গত ১০ ফেব্রুয়ারী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বড় রাজাপুর গ্রামের সিদ্দিকীয়া নূরানী মাদ্রাসার উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে বক্তা মুফতি ইউনুছ ও ইমরান হোসেন রাজুকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। পরে তারা জামিনে মুক্ত হন। এ ঘটনায় মাহফিলের মঞ্চে মুফতী ইউনুছ আহমদকে লাঞ্জিত, ইসলাম বিদ্বেষী ও অশালীন বক্তব্য প্রদান, মিথ্যা মামলা দিয়ে অযথা হয়রানীর অভিযোগ করেন হেফাজত নেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরও সংবাদ :