চুরির টাকায় একে একে ২৬ বিয়ে, অতঃপর…

0
5

অনলাইন ডেস্ক।
একে একে ২৬ টি বিয়ে করে অবশেষে ২৭ নম্বর বিয়ের আগের দিন ধরা পরলো বিয়ে পাগল চোরা বাবু (৩৭) ও তার সহযোগি আবুল খায়ের মাতুব্বর (৩২) নামের দুই যুবক।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে আটককৃত দুই যুবক কে তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে ফরিদপুর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।

এর আগে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে ভাঙ্গা ও সদরপুর থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে প্রথমে উপজেলার জান্দী গ্রাম থেকে আবুল খায়ের ও পরে সদরপুর উপজেলার আকোটের চর গ্রাম থেকে বাবু শেখকে (চোরা বাবু) গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আটকৃকত আবুল খায়ের মাতুব্বর ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার জান্দী গ্রামের আবু বক্করের ছেলে (৩২) ও বাবু শেখ (৩৭) সদরপুর উপজেলার আকোটেরচর গ্রামের দলিল উদ্দিন শেখের ছেলে। তারা সম্পর্কে ভায়রা ভাই।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ০৩ জানুয়ারী ২০২১ ভাঙ্গা উপজেলায় পর পর কয়েকটি চুরির ঘটনায় মামলা হয়। মামলার সূত্র ধরে প্রথমে জান্দী গ্রাম থেকে আবুল খায়েরকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যমতে পুলিশ চোরের সরদার বিয়ে পাগল বাবু চোরাকে গ্রেপ্তার করে।

বাবু চোরার দেয়া স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে ভাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ আজাদ জানান, অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মেয়েকে বিয়ে করাই ছিল চোরা বাবুর টার্গেট। তার জীবনের দুইটি নেশা প্রথমটি হল দামী দামী মোবাইল সেট চুরি ও দ্বিতীয়টি হল নতুন নতুন বিয়ে করে ফুর্তি করা। সে দিনের বেলায় চুরি করত, দামী মোবাইল গুলির আইইএমই নম্বর পরিবর্তন করে তা বিক্রি করেই চুরির টাকায় বিয়ের নেশায় মেতে উঠতো সে।

উপ-পরিদর্শক মোঃ আজাদ আরো জানান, গ্রামের দরিদ্র পরিবারের অভিভাবকদের দারিদ্র্যতার সুযোগ নিয়ে তাদের টাকার প্রলোভন দেখিয়ে ৮০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা দিয়ে ওই পরিবারের মেয়েকে বিবাহ করত সে। বিভিন্ন এলাকায় বিয়ে করার সুবাদে ওই সমস্ত এলাকায় খুঁজে খুঁজে চুরির ঘটনা ঘটিয়ে সে পালিয়ে অনত্র এলাকায় গাঁ ঢাকা দিয়ে আত্মগোপনে থাকতো।

তিনি আরো জানান, সম্প্রতি দিন-দুপুরে সর্বশেষ চুরির ঘটনা ছিল ভাঙ্গা উপজেলার ছিলাধরচর গ্রামের পৌরসভায় চাকুরিজীবি মিজানুরের বাড়িতে। সেখান থেকে একটি মোটরসাইকেল, কয়েকটি দামি মোবাইল, ল্যাপটপ সহ মালামাল চুরি করে বাবু। এছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি বড় চুরির ঘটনা সে ঘটায়।

এ ঘটনার ১০দিন পরেই ভাঙ্গার জান্দি গ্রামের দরিদ্র সোবাহানের মেয়ের সঙ্গে চোরা বাবুর বিয়ের দিন তারিখ ঠিক হয় আগামীকাল ১৪ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার। এর আগে সে ২৬ টি বিয়ে করেছে এমনিভাবে। এই বিয়েটি সম্পন্ন হলে ২৭ টি বিয়ে হতো তার।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক মো আজাদ আরো জানান, বাবুকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চুরির ঘটনায় তার সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছে। সে বিভিন্ন কৌশলে প্রতারণা করে এ পর্যন্ত ২৬ টি বিয়ে করেছে বলে জানিয়েছে।

বুধবার দুপুরে দুই যুবক কে তিন দিনের রিমান্ড চেয়ে ফরিদপুর আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে তাদের আটক করতে পারলেও মালামাল উদ্ধার করতে পারিনি। মালামাল উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here