July 22, 2024, 5:37 am

এক গুরুতর অভিযোগ সানি দেওলের বিরুদ্ধে!

বিনোদন ডেস্ক : সানি দেওলের বিরুদ্ধে আর্থিক প্রতারণার মতো গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা সৌরভ গুপ্তা তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ এনেছেন।

সম্প্রতি এক প্রেস কনফারেন্সে সৌরভ গুপ্তা বলেন, ‘সানি দেওল ২০১৬ সালে একটি ছবি করার জন্য তার কাছ থেকে টাকা নিয়েছিলেন। এবং তিনি ছবিটি শুরু করবেন বলে প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ছবিটি তৈরি হয়নি। তার সাম্প্রতিক ছবি ‘গদর ২’ ব্যাপক সাফল্যের পর তিনি ছবিটির শ্যুটিং বন্ধ করে দেন ‘

সৌরভ বলেন, ‘তিনি অভিনেতার বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। ৩০ এপ্রিল তাকে একটি নোটিশও জারি করা হয়। এই অভিযোগের এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানাননি সানি দেওল।’

তিনি জানান, ওই ছবিতে সানিকে পারিশ্রমিক হিসেবে ৮ কোটি টাকা দেওয়ার কথা হয়েছিল। এরপর তাকে অগ্রিম ১ কোটি টাকা দিয়েছিলেন। কিন্তু ওই ছবির কাজ শুরু করার পরিবর্তে, অভিনেতা ‘পোস্টার বয়েজ’-এর শুটিং বেছে নিয়েছিলেন। এরপর অভিনেতা প্রযোজককে ছবির জন্যে আরও টাকা দিতে বলেন।

প্রযোজক আরও অভিযোগ করেন, সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত সানি দেওলের অ্যাকাউন্টে ২.৫৫ কোটি টাকা পাঠিয়েছেন বলে দাবি সৌরভের।তার কোম্পানির সঙ্গে ২০২৩ সালে আরও চুক্তি করেছিলেন‌ অভিনেতা। চুক্তির সময় কোনও পরামর্শ না করেই নিজের পারিশ্রমিক ৪ কোটি থেকে ৮ কোটি বাড়িয়ে দেন অভিনেতা।

উল্লেখ্য, ‘জানোয়ার’ ও ‘আন্দাজ’ এর মতো সিনেমার জন্য পরিচিত চলচ্চিত্র নির্মাতা সুনীল দর্শনও প্রেস কনফারেন্সে সৌরভ গুপ্তার সমর্থনে উপস্থিত ছিলেন। এবং অভিযোগ করেছেন যে তিনিও সানি দেওলের সঙ্গে একই সমস্যার সম্মুখীন হয়েছিলেন।

তিনি বলেন, ‘সানি দেওল আমার ‘অজয়’ ছবির রাইটস কিনেছেন। বিদেশে প্রোজেকশনের জন্য এবং শুধুমাত্র অর্থ প্রদান করেছেন। বাকিটা কখনোই দেননি। পরে সানি আমাকে তার সঙ্গে একটি প্রোজেক্টে কাজ করার অনুরোধ করেন এবং বলেন, ‘আমাকে বিশ্বাস করুন, আমাকে সাহায্য করুন’ এবং আমাকে আবার টাকা দিতেও বলেছিলেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও সংবাদ :