কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

0
15

রোকনুজ্জামান কুষ্টিয়া প্রতিনিধি॥

বর্ণাঢ্য নানা আয়োজনে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। দিবস উপলক্ষে রবিবার ( ২২ নভেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় প্রশাসন ভবন চত্বরে জাতীয় সংগীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান। পতাকা উত্তোলন শেষে শান্তি ও আনন্দের প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের কর্মসূচির উদ্বোধন করেন এবং প্রশাসন ভবনের পূর্ব পাশে দুইটি গাছের চারা রোপণসহ ৪২তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে ৪২টি ফলজ ও বনজ গাছের চারা রোপণ কর্মসূচিরও উদ্বোধন করেন তিনি। এরপর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকি উপলক্ষে বেলা ১১ টায় প্রশাসন ভবনের সভাকক্ষে কেক কাটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, নানা বাধা-প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষাক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’, ‘মুক্তির আহবান’ ও ‘শ্বাশত মুজিব’ ম্যুরাল, শহীদ মিনার, শহীদ স্মৃতিসৌধ, ‘মুক্তবাংলা’ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এসব স্থাপনা এবং কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে স্থাপিত বঙ্গবন্ধু কর্ণার, মুক্তিযুদ্ধ কর্ণার ও একুশে কর্ণার আমাদের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও মহান মুক্তিযুদ্ধকে ধারণ করে আছে।
উপাচার্য আরও বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সত্যিই মনোমুগ্ধকর। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে আজ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন, অগ্রগতি ও শ্রীবৃদ্ধিতে যারা অবদান রেখেছেন তিনি তাঁদের কথা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। সকলের সহযোগিতায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়কে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে উপাচার্য বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সকলকে ৪২তম ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের শুভেচ্ছা জানান। এরপর তিনি শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪২তম জন্মদিনের কেক কাটেন। এ সময় ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ, ডিনবৃন্দ, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, হল প্রভোস্টবৃন্দ, অফিস প্রধানগণ এবং বিভিন্ন সমিতি, পরিষদ, ফোরাম ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নতি, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে সন্ধ্যা ৬টায় অনুষ্ঠিত হবে অনলাইন আলোচনাসভা (ওয়েবিনার)। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ এতে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করবেন। উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালাম-এর সভাপতিত্বে ওয়েবিনার-এ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান এবং রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ অংশগ্রহন করবেন। বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে ক্যাম্পাস বর্ণিল পতাকায় এবং ভবনসমূহ আলোকসজ্জিত করা হয়েছে।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here