চালিতাডাঙ্গা ইউপি সদস্য সোলাইমান হোসেন দৃতীয় বারের মতো জনগণের সেবা করতে চান

0
31

কাজিপুর সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি।।

কাজিপুর উপজেলার ২নং চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোঃ সোলাইমান হোসেন দীর্ঘ ৫ বছর ২নং ওয়ার্ডের শিমুলদাইড় ও শ্যামপুর গ্রামের জনগণের সেবা করেছেন।

তারই ধারাবাহিকতায় দৃতীয় বারের মতো জনগণের কাছে আশাবাদী যদি জনগণ পাশে থাকেন,তাহলে জনগণের সেবা করতে প্রস্তুত সোলাইমান হোসেন ।

তিনি বলেন আমি ইউপি সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়ে আমার ২নং ওয়ার্ডের শিমুলদাইড় ও শ্যামপুর গ্রামের সকল জনগণের আপাদে বিপদে আমার বিশ্বাস যে আমাকে সার্বক্ষনিক কাছে পেয়েছে।

এ বিশ্বাস রেখে আমি দৃতীয় বারের মতো জনগণের পাশে থেকে সেবা করতে চাই।

জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে, চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদকে আধুনিক পরিষদে গড়ে তোলার লক্ষ্যে, ২নং ওয়ার্ডের শিমুলদাইড় ও শ্যামপুর গ্রামের উন্নয়ন চলমান রাখতে আমি ১০০% বিশ্বাস করি শিমুলদাইড় ও শ্যামপুর গ্রামের সকল জনগণ আমাকে সমর্থন করবে বলে আমি প্রত্যাশী।

যেহেতু জনগণের প্রতিনিধিত্ব করতে গিয়ে তাদের মেম্বার হিসেবে তাদের কাছ থেকে বয়স্ক, প্রতিবন্ধী ও বিধবা ভাতা কোনো টাকা নেয়নি এমনকি ভি জি টি কার্ডে এবং গর্ভকালীন ভাতাতে কোনো টাকা দিতে হয়নি আমাকে।

তাছাড়া ভিজিএফ,রেশন চাউল কার্ড ,বন্যায় সরকারী সকল সেবা সঠিক ভাবে পেতে কোন প্রকার হয়রানি ও প্রতারণা হতে হয়নি।

বিশ্বমহামাড়ি করোনা ভাইরাস আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পেতে মানুষ যখন গৃহ বন্দী হয়ে পরেছিলেন তখন সরকারের বরাদ্দ খাদ্য সামগ্রী ইউপি চেয়ারম্যানের দিকনির্দেশনায় কর্মহীন মানুষের ঘরে ঘরে পৌছে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন করোনা চলাকালীন শুধু সরকারের বরাদ্দই নয় ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে ও নিজের ব্যাক্তিগত উদ্যোগে শত শত গৃহ বন্দী মানুষের ঘরে পৌছে দিয়েছি খাদ্য সামগ্রী।

এছাড়া ও সরকারী ঘর পেতে কোন প্রকার টাকা লেনদেন করতে হয়নি।

কৃষক সঠিক সময়ে তাদের বিভিন্ন ধরনের বীজ সহায়তা পেয়েছেন।

রাস্তা ঘাট সংস্কার ও কালভার্ট নির্মাণ হয়েছে বিগত দিনেরচে আরও বেশি, উন্নয়নের ছোয়া লেগেছে মসজিদ মাদ্রাসাতেও , সে বিশ্বাসে আমি দৃতীয় বারের মতো ২নং ওয়ার্ডের শিমুল দাইড় ও শ্যামপুর গ্রামের সকল জনগণের সেবা করতে চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here