ছাত্রীর যৌন নির্যাতন করে লম্পট ২০ টাকা দিয়ে বলে কাউকে বলবি না

0
17

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের মিন্টু কুমার দাস নামে এক কসমেটিক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের মামলা হয়েছে। কালীগঞ্জের কলেজপাড়ার বাসিন্দা ও সলিমুন্নেছা বালিকা বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়–য়া এক ছাত্রীর মা বুধবার দুপুরে বাদী হয়ে মামলাটি করেন। শহরের মুরগীহাটার কসমেটিক্স ব্যবসায়ী লম্পট মিন্টু দাস কালীগঞ্জ উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের রনজিৎ দাসের ছেলে। নির্যাতনের শিকার মেয়েটি জানায়, মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) স্কুল থেকে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে এক বান্ধবীর সাথে বাসায় ফিরে গল্প করছিলাম। হঠাৎ মিন্টু আমাদের বাসায় ঢুকে আমার বান্ধবীকে আজেবাজে কথা বলে বাড়ি থেকে চলে যেতে বলে। আমার বান্ধবী চলে যাওয়ার পর পরই মিন্টু আমাকে জড়িয়ে ধরে এবং আমার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। আমার শরীর এখনো ব্যাথা করছে। যাওয়ার সময় মিন্টু আমাকে ২০ টাকা দিয়ে বলে যায় এ কথা কাউকে না জানাতে। ভিকটিমের মা ও মামলার বাদী হাসি দাস জানান, আমার দুই মেয়ে স্কুল থেকে বাসায় ফিরে সংসারের নানা কাজ করে। আর আমি বাইরে পরের বাড়িতে কাজ করতে যায়। মঙ্গলবার বিকালে বাসায় ফিরে দেখি মেয়ে কান্নাকাটি করছে। জিজ্ঞাসা করতেই বলে মিন্টু আমার শরীরে হাত দিয়েছে। কালীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ ইউনুচ আলী বলেন, ৬ষ্ট শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মেয়েটির মা বুধবার বাদি হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেছেন যার নং ২১/১৯। যৌন নির্যাতানকারী মিন্টু দাসকে গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here