রাষ্ট্রায়ত্ব চিনিকলগুলো বন্ধের প্রতিবাদে ৫ দফা দাবিতে দর্শনায় মানববন্ধন

0
58

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি।।

চিনিকলসমূহ বন্ধের সরকারি পরিকল্পনার প্রতিবাদে বাংলাদেশ চিনিশিল্প কর্পোরেশন শ্রমিক-কর্মচারী ফেডারেশন ও বাংলাদেশ চিনিকল আখচাষী ফেডারেশন কর্তৃক ঘোষিত ৫ দফা দাবিতে দর্শনা কেরু এ্যান্ড কোম্পানি চিনিকলের শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়ন ও আখচাষী কল্যান সংস্থার আয়োজনে মানবন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

শনিবার বেলা ১১ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত দর্শনা রেলবাজার প্রধান সড়কে এ মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এলাকার সকল সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও ব্যবসায়ী সংগঠনের নের্তৃবৃন্দ একাত্মতা প্রকাশ করে এ মানবন্ধনে অংশ নেন। এছাড়াও এলাকার সর্বসস্তরের শত শত পুরুষ-নারী এ মানববন্ধনে অংশ নেন।
মাবন্ধববন্ধনে বক্তরা বলেন, লাখ লাখ মানুষের রুটি-রুজির হাতিয়ার চিনিকলগুরো এদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্যের অংশ। এলাকার আর্থ-সামজিক উন্নয়নের ব্যাপক ভুমিকা রেখে চলেছে। সুতারাং চিনিকল বন্ধ করার সকল অপতৎপরতা প্রতিহত করা হবে। একই সঙ্গে ১৫টি চিনিকলে মাড়াই মৌসুমের তারিখ নির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত কোন চিনিকলের বয়লার স্লো ফায়রিং করতে দেয়া হবে না। এরপরও দাবী-দাবা মানা না হলে আরো বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

প্রত্যেকটি চিনিকল এলাকায় পোস্টার, ব্যানার ও লিফলেট বিতরণ করছে শ্রমিক-কর্মচারীরা।

কেরু এ্যান্ড কোস্পানি চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের নেতারা বলেন, চিনি শিল্প সরকারের সিদ্ধান্তের কারনে আরো সমস্যায় নিমজ্জিত হচ্ছে। বিভিন্ন ভুল সিদ্ধান্ত চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারীদের ওপর চাপিয়ে চিনিকল বন্ধের পাঁয়তারা করা হচ্ছে। এতে করে করোনার এ সংকটে শ্রমিক-কর্মচারীরা অসহায় অবস্থার মধ্যে পড়বে।

আখচাষী নেতারা বলেন, চলতি মওসুমে হাজার হাজার আখচাষী আখ চাষ করেছে চিনিকলে আখ সরবরাহ করবে বলে। কিন্তু সরকার ৬ টি চিনিকল বন্ধ করে দিয়ে এসব চাষীদের করোনার এ সংকটে দুর্যোগে ফেলছে। চিনিকলগুলো বন্ধ না করে এগুলো লাভজনক করতে নানামুখী উদ্যাগে নিতে হবে। এ ক্ষেত্রে সরকারের সব উদ্যোগের সাথে আখচাষীরা আছে। আখচাষীদের সকল পাওনা পরিশোধ করে সেই সাথে প্রনোদনা দিয়ে আখ চাষ লাভজনক করতে সরকারকে পদক্ষেপ নিতে হবে।

এ মানবন্ধন থেকে ৫ দফা দাবী বাস্তবায়নের আহবান জানানো হয়। দাবীগুলো হলো- চিনিকলে নিয়োজিত শ্রমিক-কর্মচারীদের ৫-৬ মাসের বকেয়া বেতনসহ সকল পাওনাদি এবং অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের গ্রাচ্যুইটির টাকা পরিশোধ, চিনিকল বন্ধের প্রক্রিয়া বাতিল, আসন্ন মাড়াই মৌসুম (২০২০-২০২১) পূর্বে যাবতীয় মালামাল সরবরাহ, আখ উৎপাদনের স্বার্থে সার,বীজ ও কীটনাশকসহ জরুরি উপকরণসমূহ সরবরাহ ও আখচাষীদের আখের বকেয়া মূল্য পরিষদ করতে হবে।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here