আমি কেমন করে আঁকি সেই নগ্নতার ছবি

0
24

রাশিদা- য়া -আশরার।

আমি কেমন করে আঁকি সেই নগ্নতার ছবি
রক্ত নদীতে স্নান- জাতির অবদান ;
এক একটা শব্দ সাজিয়ে- নিঃশব্দে মালা গেঁথে দুর্ভিক্ষের ছবি আঁকি মনের ক্যানভাসে!
প্রকৃতির কোলে স্বপ্ন সাজিয়ে লজ্জাবতী কন্যা- মেহেদী রঙে রঙিন হবে হাত-আলতা রঙে পা;
লাল বেনারসি, কাঁচের চুরি যাবে শ্বশুর বাড়ি-
চার বেহারার কাঁধে চড়ে পালকি করে বঙ্গকন্যা!
অবশেষে মেহেদির রঙে নয়- সাদা কাফনে আবৃত;
আমি কেমন করে আঁকি সেই ছবি নগ্ন চোখেতে!

আমার বোনের শরীরের উপর প্রভাব বিস্তার করে আছে পাকি বাহিনীর নষ্ট রক্ত, জীর্ণ বাসনা;
শাড়ির ভাঁজে আঁচলটা মুখে গুজে সেদিন দাফন করেছে অনাহুত আশা;
চোখের অশ্রু করে আড়াল- তীব্র প্রতিবাদের ঝড়-
ঝলসানো দেহের রক্তে শুদ্ধ করেছে বাংলার মুখ!
আমি কেমন করে আঁকবো সেই নগ্নতার ছবি
আমার অবচেতন মনের খেয়ালে-ও পারি না; বীরঙ্গনা বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের,মা, বোনদের রক্ত নদীতে স্নান করা- জাতির অবদান এবং আত্মত্যাগের কাহিনী!
প্রতিটি মা, বোন, যবুক-,বৃদ্ধ, কৃষক, শ্রমিক, দিনমজুর, বুদ্ধিজীবী;
সেদিন সকলেই ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নিবেদিতপ্রাণ ভুক্তভোগী!
আমি কেমন করে আঁকি ১৫-ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু কে
সপরিবারে হত্যার চিত্র রক্ত স্নাত কালরাতের বিদগ্ধ কাহিনী!
এক টুকরো হাসি- এক টুকরো মানচিত্র;
মুক্তি যুদ্ধের জল রঙে আঁকা প্রতিচ্ছবি- সাত কোটি বাঙ্গালী!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here