দীর্ঘদিনের প্রেমিকাকে বিয়ে, অতঃপর বৌভাতের দিন সকালেই বরের মৃত্যু!

0
19

অনলাইন ডেস্ক।

দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। সেই সম্পর্ক থেকে গত ১০ ডিসেম্বর চার হাত এক হয়েছিল। বৌভাতের অনুষ্ঠান হওয়ার কথা ছিল ১২ ডিসেম্বর। কিন্তু ভালবেসে বিয়ের পরিণতি সুখকর হল না বরের।

বৌভাতের দিন সকালেই মর্মান্তিক মৃত্যু হল তার। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে কলকাতার নেতাজি নগর থানা এলাকায়।
পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত যুবকের নাম নীলাদ্রি চক্রবর্তী, বয়স মাত্র ২৬ বছর। বৃহস্পতিবারই ধুমধাম করে দীর্ঘদিনের প্রেমিকার সঙ্গে নীলাদ্রির বিয়ে হয়েছিল। এরপর এদিন ছিল বৌভাতের অনুষ্ঠান। বাড়ির কাছে বিশাল মাঠজুড়ে বাঁধাও হয়েছিল প্যান্ডেল। কিন্তু অনুষ্ঠানের আগেই এদিন সকালে আচমকা মৃত্যু হল বরের।

এদিকে, নববিবাহিত নীলাদ্রির আকস্মিক মৃত্যুর তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, মদ এবং সিগারেটের নেশা ছিল তার।

ঘটনার আগের রাতেও বন্ধুদের সঙ্গে মদ্যপান করেন। পুলিশের অনুমান, এরপর হাতে জ্বলন্ত সিগারেট নিয়েই হয়তো নিজের ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন নীলাদ্রি। ওই সিগারেট থেকেই কোনওভাবে বালিশে আগুন লেগে গোটা ঘর ধোঁয়ায় ভরে যায়। কোনও জানলা–দরজা খোলা না থাকায় ওই ধোঁয়ার কারণেই দমবন্ধ হয়ে যায় নীলাদ্রির। পরদিন ভোরে বাবা দরজা খুললে দেখতে পান, সারা ঘর ধোঁয়ায় ভরতি এবং ছেলে অচেতন হয়ে পড়ে আছে।
এরপরই নীলাদ্রিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ঘটনার পরপর খবর দেওয়া হয় নেতাজি নগর থানায়। পুলিশ গিয়ে ময়নাতদন্তে পাঠায় মরদেহ।

রিপোর্টে জানা যায়, নীলাদ্রি গ্যাসট্রিক আলসারে ভুগছিলেন, এছাড়া লিভারেও সমস্যা ছিল। শরীরে অতিরিক্ত কার্বন মনোক্সাইড প্রবেশ করাতেই মৃত্যু হয়েছে তার।

এদিকে, এই ঘটনায় দুই বাড়িসহ গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। জানা গেছে, নিজের বিয়ে নিয়ে নীলাদ্রি খুবই আনন্দে ছিলেন। ফেসবুকে সব কিছুর আপডেটও দিচ্ছিলেন। বিয়ের পর নিজের স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে ছবিও পোস্ট করেন। কিন্তু তার পরদিনই এই মর্মান্তিক ঘটনা যেন কেউই বিশ্বাস করতে পারছেন না। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here