হালকা কুয়াশায় শীতের পদধ্বনি

0
29

দৈনিক পদ্মা সংবাদ ডেস্ক।।
উত্তর জনপদসহ দেশের প্রত্যন্ত গ্রাম-জনপদের অনেক স্থানে হালকা কুয়াশাপাতে শীতের পদধ্বনি এবং হেমন্তের আবহাওয়ায় স্বাভাবিক পালাবদল টের পাওয়া যাচ্ছে। গতকাল দেশের সর্ব-উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় তাপমাত্রা নেমে আসে ১৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। উত্তর-পশ্চিমে রাজশাহী এবং দক্ষিণ-পশ্চিমের জনপদ চুয়াডাঙ্গায়ও ২০ ডিগ্রিতে নেমেছে।

দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ফেনী ও কক্সবাজারে ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় সর্বোচ্চ ৩২.৮ এবং সর্বনিম্ন ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। চট্টগ্রামে সর্বোচ্চ ৩৩.২ এবং সর্বনিম্ন ২৫.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
বঙ্গোপসাগরে শিগগিরই ফের কোন লঘুচাপ-নিম্নচাপের ঘনঘটা সৃষ্টি না হলে শীতের আমেজ ক্রমেই বাড়তে পারে। অন্যথায় আবহাওয়া ওলোটপালট হয়ে যেতে পারে। কয়েকদিন আগে একটি গভীর নিম্নচাপ ক্রমেই দুর্বল হয়ে এবং প্রবল বৃষ্টি ঝরিয়ে বাংলাদেশের উপর দিয়ে কেটে গেছে।

আবহাওয়া বিভাগ জানায়, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, ময়মনসিংহ, রংপুর বিভাগ এবং কুমিল্লা ও নোয়াখালী অঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামসহ দেশের অবশিষ্ট অঞ্চল থেকে বিদায় নিতে পারে। মৌসুমী বায়ু চট্টগ্রাম অঞ্চলে কম সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় রয়েছে। স্মরণকালের মধ্যে এ বছর দীর্ঘস্থায়ী সক্রিয় মৌসুমী বায়ু কেটে যাচ্ছে অনেক বিলম্বে।

আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানা গেছে, অস্থায়ীভাবে আকাশ আংশিক মেঘলাসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। চট্টগ্রাম অঞ্চলের দুয়েক জায়গায় হালকা বৃষ্টি, বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।
সারাদেশে তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় আবহাওয়ার কিছুটা পরিবর্তন হতে পারে। এরপরের ৫ দিনে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here