জীবননগরে দিনদুপুরে সোনালী ব্যাংকের পৌনে ৯ লাখ টাকা লুট

0
10

দৈনিক পদ্মা সংবাদ ডেস্ক।।
চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী বাজারের সোনালী ব্যাংকের শাখাশ দিনদুপুরে পৌনে ৯ লাখ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে ডাকাতরা। রবিবার (১৫ নভেম্বর) দুপুর সোয়া ১টার দিকে ব্যাংকের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এই টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে উথলী বিজিবির বিশেষ ক্যাম্পের সদস্যরা ও জীবননগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পোঁছান ।



পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার, চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান, জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম মুনিল লিংকন, চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) আবু রাসেল, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) উপ-পরিচালক মো. জিএম জামিল সিদ্দিক, সোনালী ব্যাংকের প্রিন্সিপাল অফিসার ব্যবস্থাপক খন্দকার আবুল কালাম আজাদ, সহকারী ব্যবস্থাপক আনিসুর রহমান, জীবননগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলামসহ ডিজিএফআই, ডিএসপি ও সিআইডির উর্দ্ধতন কর্মকর্তা।

উথলী সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, রবিবার দুপুরে সাদা পিপিই ও মাথায় হেলমেট পরিহিত ৩ জন ডাকাত ব্যাংকে প্রবেশ করে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে ব্যাংকে ক্যাশ কাউন্টার ও ভল্টে থাকা প্রায় ৯ লাখ টাকা লুট করে অস্ত্র উঁচিয়ে মোটরসাইকেলযোগে পালিয়ে যায়।

এদিকে মন্টু নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, মোটরসাইকেলযোগে তারা পালানোর সময় ইট-পাটকেল মারা শুরু করলে ডাকাত দলের এক সদস্যের মাথায় লাগে। এসময় ডাকাত দলের এক সদস্য পিস্তল উচিয়ে গুলি করতে উদ্যত হলে আমরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পড়ি। এসময় তারা মোটরসাইকেলে করে তারা পালিয়ে যায়।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার জানান, এই তথ্য প্রযুক্তির যুগে এ ঘটনাটা অনেকটা ভাবিয়ে তোলার মতোই বিষয়। তবে ব্যাংকে সিসিটিভি না থাকাটা অত্যন্ত দুঃখজনক। দোষীদের ধরতে পুলিশ কাজ করছে। আশা করা যাচ্ছে অতি শীঘ্রই তাদের আটক করতে সক্ষম হবে।

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল ইসলাম জানান, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মধ্যে সোনালী ব্যাংক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ ব্যাংকে ডাকাতি ঘটনার কথা জানার পর থেকেই পুলিশের সবগুলো ইউনিটকে কাজে লাগানো হচ্ছে। সব কয়টি রাস্তার মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। তবে ব্যাংকটিতে কোনও সিসিটিভি ছিল না। থাকলে আমাদের কাজ আরও সহজ হতো।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here