October 22, 2021, 12:28 pm

খালেদা জিয়া হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন

অনলাইন ডেস্ক।
১১৫ দিন পর ফের এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার বিকেলে তিনি গুলশানের বাসা থেকে ওই হাসপাতালে যান। হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে মেডিক্যাল বোর্ড খালেদা জিয়ার কিছু শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাঁকে ভর্তি করার সুপারিশ করেন। এরপর বিকেল সাড়ে চারটায় তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার সঙ্গে রয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমা।

সুত্র জানায়, ক’দিন ধরে খালেদা জিয়ার শরীরের তাপমাত্রা ওঠানামা করছিল। মঙ্গলবার সকাল থেকেই জ্বরে আক্রান্ত হন খালেদা জিয়া। খবর পেয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দুপুরে বাসায় গিয়ে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন। এরপর বিকেল ৩টা ৪০ মিনিটে গুলশানের বাসা ফিরোজা থেকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার এভারকেয়ার হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা দেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। বিকেল ৪টা ৫ মিনিটে তিনি হাসপাতালে পৌঁছান। এভারকেয়ার হাসপাতালের গেটে তাঁর গাড়িবহর পৌঁছালে আগে থেকে সেখানে অবস্থান করা শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মী খালেদা জিয়ার নামে স্লোগান দেন। তাঁর গাড়িবহরের সামনে ও পেছনে ছিল কড়া পুলিশ প্রহরা। এছাড়া ছিল তার ব্যক্তিগত নিরাপত্তায় নিয়োজিত সিএসএফ সদস্যরাও।

এভারকেয়ার হাসপাতালে খালেদা জিয়ার শারীরিক পরীক্ষার সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন ব্যক্তিগত চিকিৎসক টিমের সদস্য অধ্যাপক ডাঃ এজেডএম জাহিদ হোসেন, ডাঃ আল মামুন, বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস প্রমুখ।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় সাজা হওয়ায় কারাগারে যান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। দেশে করোনা পরিস্থিতি শুরুর পর স্বজনদের আবেদনের প্রেক্ষিতে সরকারের নির্বাহী আদেশে ২০২০ সালের ২৫ মার্চ শর্তসাপেক্ষে সাময়িক মুক্তি পান খালেদা জিয়া। ৭৬ বছর বয়সী বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এখনও পুরনো বিভিন্ন রোগে অসুস্থ।

এর আগে গত ২৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে নিয়ে সিটি স্ক্যানসহ বিভিন্ন পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার রিপোর্ট ভাল না আসায় ওইদিনই তাঁকে ভর্তি করা হয় এভারকেয়ার হাসপাতালে। এভারকেয়ার হাসপাতালে শারীরিক অবস্থার তেমন উন্নতি না হওয়ায় ১৯ জুন খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে গুলশানের বাসায় নিয়ে আসা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish