March 4, 2024, 8:52 am

টিকা না নিলে মিলবে না পেট্রল-ডিজেল,কেনা যাবে না চাল-ডাল-নুন, কড়া ঘোষণা এই জেলায়

অনলাইন ডেস্ক।

ঔরঙ্গাবাদ জেলা প্রশাসন রেশনের দোকান, গ্যাস এজেন্সি এবং পেট্রোল পাম্পগুলিকে নির্দেশিকা পাঠিয়ে জানিয়েছে যে, শুধুমাত্র সেই লোকেদের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং জ্বালানী সরবরাহ করা যাবে যারা কোভিড ভ্যাকসিনের কমপক্ষে একটি ডোজ গ্রহণ করেছে। মারাঠওয়াড়ার এই জেলায় মানুষকে টিকা নিতে বাধ্য করার জন্যই এহেন পদক্ষেপ বলে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন

ঢাকা-প্যারিস দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য দ্বিগুণ করার ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর

 

এই মাসের শুরুতেই জেলা কলেক্টর আদেশ দিয়েছিলেন যে যারা কোভিড ভ্যাকসিনের একটি ডোজও গ্রহণ করেননি তাদের ঔরঙ্গাবাদের ঐতিহাসিক স্থান এবং স্মৃতিস্তম্ভগুলিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। উল্লেখ্য এই জেলায় টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা খুবই কম। এর জন্যই পরপর কঠোর সিদ্ধান্ত নিচ্ছে প্রশাসন।

মঙ্গলবার জারি করা আদেশে ঔরঙ্গাবাদ জেলা কলেক্টর সুনীল চৌহান ন্যায্য মূল্যের দোকান, গ্যাস সংস্থা এবং পেট্রোল পাম্পের কর্তৃপক্ষকে গ্রাহকদের টিকা শংসাপত্র পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছেন। আদেশ অনুসারে, কেবলমাত্র সেই সমস্ত নাগরিকরা রেশনের দোকান থেকে মুদি, এজেন্সিগুলির গ্যাস সিলিন্ডার এবং পেট্রোল পাম্প থেকে জ্বালানী কিনতে সক্ষম হবে যারা কোভিড ভ্যাকসিনের কমপক্ষে একটি ডোজ গ্রহণ করেছেন।

যদি আদেশটি অনুসরণ না করা হয়, প্রশাসন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন এবং মহামারী রোগ আইনের অধীনে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে বলে জানান জেলাশাসক। উল্লেখ্য, ঔরঙ্গাবাদ জেলার টিকার যোগ্য জনসংখ্যার প্রায় ৫৫ শতাংশকে এখনও পর্যন্ত টিকা দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে এই সংখ্যাটা ৭৪ শতাংশের। রাজ্যের তুলনায় জেলায় অনেক কম সংখ্যক টিকাকরণ সম্ভব হয়েছে। মহারাষ্ট্রের 36টি জেলার মধ্যে টিকা দেওয়ার নিরিখে ঔরঙ্গাবাদ ২৬তম স্থানে রয়োছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     আরও সংবাদ :