March 23, 2023, 11:54 pm

বর্তমান সময়ে মানুষ আছে মানবতা- মনুষ্যত্ব নেই

রাশিদা য়ে-আশরার,কবি ও সাহিত্য সম্পাদক, দৈনিক পদ্মা সংবাদ।

“যার দ্বারা মানবতা উপকৃত হয় মানুষের মধ্যে সেই উত্তম” -আল হাদিস।

বর্তমান সময়ে মানুষ আছে মানবতা- মনুষ্যত্ব নেই,
বিবেক আছে তবে অন্ধ, মন আছে তা খালি- অন্তর আছে অসুস্থ!
বাক স্বাধীনতা প্রতিটি সাধারণ মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার- একজন বক্তৃতা প্রদানকারী আলেমের
বা সুস্থ মানুষের জিহবা কেটে দিয়ে কথা বলার শক্তি কেড়ে নেয়ার মত “সুখ” এ কোন ধরনের পশুত্ব?
এরা মানব জাতির কলঙ্ক দেশের আবর্জনা কিট পতঙ্গ; এক সাগর রক্তের বিনিময়ে একটি স্বাধীন দেশে মানুষ নামের এইসব নর পশুদের বেঁচে থাকার কোন অধিকার নেই বলে মনে করি!

দেশে আইনশৃংখলা রক্ষাবাহিনির আছে আদালত আছে, বড় মাপের আলেমগণ আছেন তাদের নিয়ে বসেই সিদ্ধান্ত নিতে পারতেন যদি তাঁর বক্তব্য ভুল থাকে তাঁকে সতর্ক বা সংশোধন করে দিতেন।
তাই বলে মানুষ হয়ে একজন জীবন্ত মানুষের জিহবা কেটে দেয়ার মত হিংসাত্মক কার্যকলাপ কিভাবে ঘটাতে পারে?

এ ধরনের ঘটনা চিত্র যখন পত্রিকার পাতায়, লোকমুখে সংবাদপত্রের অথবা ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে তখন নিজের চোখকেও যেন বিশ্বাস হতে চায় না! বারবার সেই রোমহর্ষক ঘটনা চিত্র এখনো চোখের সামনে জ্বলজ্বল করে জ্বলছে…হাজারো প্রশ্নের বানে উথাল পাথাল করে- ক্ষতবিক্ষত হয় হৃদয়; নানাবিধ ঘটনার পুনরাবৃত্তি হৃদয়ে রক্তক্ষরণ… মানুষ কিভাবে এত হিংস্র পশুর মত আচরণ করতে পারে?

মানুষের রূপী ওইসব নরপশুদের আইনের আওতায় এনে কঠিনতম শাস্তি দেওয়া উচিত। ইসলামে বিধান- যখন চুরি করলে হাত কাটা যাবে,তখন এ ধরনের জঘন্যতম অপরাধ করলে তাদের শাস্তি কি হবে?

এই নর পশুরা কি কখনো মৃত্যুবরণ করবে না তাই মনে করে, তারা কি নাস্তিক? কুরআন হাদিসের কোন বাণী কি তাদের কর্ণ স্পর্শ করেনি? কি করে পৌঁছাবে তারা তো বধির- কান থাকতেও শ্রবণ করে না, চোখ থাকতেও দৃষ্টিহীন ভালো মন্দ দেখেনা, মন থাকতেও উপলব্ধি করতে পারে না; ধিক শত বিলিয়ন ধিক এদের নির্দ্বিধায় বলতে হয় ওরা মানুষরূপী নরপশু ইয়াজিদ বাহিনীর সদস্য! আইন অনুযায়ী উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছি জঘন্যতম পৈশাশিক এই ঘটনার। এই নরপশুরা যেন আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে বেরিয়ে না যেতে পারে সেই কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরও সংবাদ :