নাটোরে গলায় বাঁশি আটকে শিশুর মৃত্যু

0
15

দৈনিক পদ্মা সংবাদ ডেস্ক ।।
নাটোর সদর হাসপাতালে এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসায় ১০ বছরের শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ করেছে পরিবার। নাটোর সদর উপজেলার চক তেবাড়িয়া গ্রামের কৃষক খোদাবক্সের ছেলে আরিফুল (১০)। পারিবার সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে বাঁশি বাজানোর সময় শিশু আরিফুলের গলায় আটকে যায়। পরিবারের লোকজন প্রথমে স্থানীয় এক ক্লিনিকে নিয়ে গেলে সেখান থেকে নাটোর সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়। সদর হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. কাজী মোহম্মদ আলী রাসেল জরুরি বিভাগেই শিশুটির গলা থেকে বাঁশিটি বের করার চেষ্টা চালান। এতে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাড়াহুড়া করে রাজশাহী পাঠানোর প্রস্ততি নেয়ার সময় তার মৃত্যু হয়।শিশুর মৃত্যুর সংবাদ স্বজনদের মধ্যে জানাজানি হলে চিকিৎসক আত্মগোপনের চেষ্টা করেন। আরিফুলের বাবা খোদাবক্সের অভিযোগ, ভুল চিকিৎসার মাধ্যমে তার একমাত্র শিশুপুত্রকে মেরে ফেলা হয়েছে। একমাত্র সন্তানকে হারিয়ে হাসপাতালের মধ্যে বিলাপ করছে বাবা খোদাবক্স ও মা আছমা বেগম। নাটোর সদর হাসপাতালের আরএমও ডা. মুনজুর রহমান জানান, এ ধরনের ঝুঁকি নেয়া ঠিক হয়নি। নাটোর সদর হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. আনছারুর হক বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নাটোর সদর হাসপাতালের শিশু আরিফুলের মৃত্যুর ঘটনায় ডাক্তারের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ এনে মামলা করেছেন নিহতের বাবা খোদাবক্স। সোমবার সন্ধ্যায় নাটোর সদর থানায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে ডাক্তার কাজী মোহম্মদ আলী রাসেলের বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে এ মামলা করেন। এছাড়া নাটোর সিভিল সার্জন দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here