May 15, 2021, 5:19 am

কোন সুদূরে!

রাশিদা-য়ে আশরার।
সবুজ বনানী ঘেরা, বনরাজি, নদ-নদী,পাখপাখালি, দোয়েল, ময়না,শালিক,টিয়ে মাছরাঙ্গা আর ফিঙে,
জন্ম ভূমির মায়াবী অপরূপ রূপে আলপনা এঁকে-
মন ছুটে যাই দূর হতে দূরে- বহু দূরে- জানিনা সে কোন সুদূরে…
মন ছুটে যায় শাপলা-শালুক, মেঠোপথ ঝিলের ধারে,
যেমন খুশি তেমন সাজ শাপলা ফুলের মালা গেঁথে;
পদ্ম পাতার বৃষ্টি ভেজা উষ্ণতার পরশ হৃদয়ে মেখে,
মন হারিয়ে যায় ছেলেবেলার দুরন্তপনা,স্বপ্নীল আবেশে!
পুকুরপাড়ে লাপ ঝাঁপ, ছোয়াছুয়ি আর ডুবসাঁতারে
নদীর তীরে-শামুক,ঝিনুক-মুক্তার খোঁজে উচ্ছ্বাসে
পানকৌড়ি আর জল কেলিদের সঙ্গে গল্পে মেতে;
কেটে যেত অহরহ জাল বুনে- স্বপ্নীল এক অনুভূতিতে!
শৈশবের শিশির স্নাত- মিষ্টি রোদের সোনালী সকাল,
বৃষ্টি ভেজা উদাসী দুপুর ,পড়ন্ত বিকেলে খেলাধুলা,
সূর্য ডোবা গোধূলি বেলায়- কিশোর মনে রং এর ছোঁয়া
হৃদয়ের দোলা প্রনয় সুরে আবদ্ধ হয় রুপালি সন্ধ্যায়!
প্রকৃতির এমন চিত্র বাঙালির আকাশ-বাতাস প্রকৃতি,
আলো আবহাওয়া মানব মনের পথ পরিক্রমায়…
কবির কাব্য কবিতায়, গল্প-উপন্যাসে- গানে প্রাণে,
মনের ফ্রেমে- স্মৃতির দেয়ালে যুগ যুগ ধরে আবহমান…
রূপসী বাংলা স্বপ্নে ও জাগরনে- জানি না সে নিয়ে যায় দূর বহুদূর, কোন সুদূরে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish