December 3, 2022, 1:35 am

ক্যামেরুনকে ১-০ গোলে হারালো সুইজারল্যান্ড

জয় দিয়ে বিশ^কাপ মিশন শুরু করলো সুইজারল্যান্ড। বাছাইপর্বে ইউরো বিজয়ী ইতালির চেয়ে এগিয়ে থেকে কাতার বিশ^কাপ নিশ্চিত করা সুইজারল্যান্ড শক্তিশালী ক্যামেরুনকে ১-০ গোলে পরাজিত করেছে।
আজ কাতারের আল-ওয়াকরাহ’র আল-জানুব স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বিশ^কাপে জি’ গ্রুপের ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে সুইজারল্যান্ডের হয়ে জয়সুচক গোলটি করেছেন ব্রিল এমবোলো। টানা পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপে খেলতে আসা সুইজারল্যান্ডের এটি ছিল ১২তম আসর। অপরদিকে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুনের মধ্যে প্রথম এই লড়াইয়ে জয় হলো সুইসদের।
ম্যাচের শুরুতে খুব একটা ঝুঁকি না নিয়ে পরস্পরকে যাচাই করে নিতে দেখা যায় দল দুটিকে। তবে প্রথম পরিকল্পিত আক্রমনটি এসেছে ক্যামেরুন থেকে। ম্যাচের ১০ম মিনিটে বাঁ প্রান্ত দিয়ে কার্ল টোকো-একাম্বি ডি বক্সে ঢুকে শট নিলে সেটি ফিস্ট করেন সুইস গোল রক্ষক ইয়ান সোমার। ফিরতি বলে এরিক ম্যাক্সিম চুপো-মোটিং শট নিলে সেটি লক্ষ্যভ্রস্ট হয়।
১৩ মিনিটে সুইস ফরোয়ার্ড ব্রিল এমবোলো ডি বক্সে ঢুকে পড়লেও এর আগে অফসাইডের বাঁশি বজিয়ে দেন কর্তব্যরত রেফারি। পরের মিনিটে প্রতিআক্রমন চালিয়ে একাম্বি ডি বক্সে এসেই খেই হারিয়ে ফেলেন। ফলে পোস্টে শট নিতে ব্যর্থ হন।
এরপর ৩০ মিনিটে ডান প্রান্ত দিয়ে মিড ফিল্ডার মার্টিন হোংলা সুইস ডি বক্সে ঢুকে চলন্ত অবস্থায় শট নিলে সেটি ঝাপিয়ে পড়ে ফিরিয়ে দেন গোলরক্ষক সোমার। দুই মিনিটে সুইস স্ট্রাইকার ব্রিল এমবোলো ডান প্রান্ত দিয়ে ক্যামেরুনের ডি বক্সে ঢুকে সেটি সরাসরি পোস্টে শট না নিয়ে পাস দিতে গিয়ে ব্যর্থ হন।
ব্রায়ান এমবেমোর ক্রস ডি বক্সের লাইন থেকে ৩৪ মিনিটে চুপো মোটিং নিয়ন্ত্রনে নিতে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন সুইস ডিফেন্ডার সিলভান উইডমার। ফলে ভালো একটি সুযোগ হাতছাড়া হয় ক্যামেরুনের।
কিন্তু ৩৮ মিনিটে অদম্য সিংহদের রক্ষনের ভুলে বল পেয়ে যান এমবোলো। তবে বাঁ প্রান্ত দিয়ে পোস্টের কাছে এসেই পড়ে যান তিনি। ইনজুরি টাইমে কর্নার থেকে রুবেন ভারগাসের ক্রসের বলে লাফিয়ে উঠে হেড করেছিলেন সুইস ডিফেন্ডার ম্যানুয়েল আকাঞ্জি। কিন্তু মাথার পেছনে লেগে বলটি সাইডলাইন অতিক্রম করে। ফলে গোল শুন্য ড্রয়ে বিরতিতে যায় দল দুটি।
বিরতি থেকে ফেরার পরপরই দারুন এক ভেল্কি দেখায় সুইজারল্যান্ড। কিছু বুঝে উঠার আগেই পরিকল্পিত এক আক্রমন থেকে গোল খরা দূর করে তারা। ম্যাচের ৪৮মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে জিহার্দান শাকিরির ক্রসের বল ডান পা দিয়ে জালে জড়ান ব্রিল এমবোলো (১-০)।
এরপর দুই দলের মধ্যে আক্রমন ও পাল্টা আক্রমনে ম্যাচ এগিয়ে গেলেও গোলের মোক্ষম সুযোগ সৃস্টি করতে পারেনি কোন পক্ষ। ম্যাচের ৮২তম মিনিটে অবশ্য ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল সুইজারল্যান্ড। কিন্তু কাজে আসেনি। ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে ডিবক্সের বাইরে থেকে জোড়ালো একটি শট নিয়েছিলেন সুইস অধিনায়ক সাকিরি। এবারও দেয়াল হয়ে দড়ান গোল রক্ষক আন্দ্রে ওনানা। বিপরীতে ক্যামেরুনকে দেখা যায়নি গোল পরিশোধের জন্য আরো উজ্জীবিত হয়ে খেলতে। প্রথমার্ধে সম্ভবত বেশী শক্তি ক্ষয় করায় দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা ক্লান্ত মনে হয়েছে অদম্য সিংহদের।
ইনজুরি টাইমের ৫ম মিনিটে সাকিরি একাই বল নিয়ে ক্যামেরুনের ডিবক্সে ঢুকে গিয়েছিলেন। এ সময় গোল রক্ষক ওনানাকে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি তিনি। ফলে ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরও সংবাদ :