September 22, 2021, 5:47 am

গ্যাস সংযোগের ৫০ হাজার টাকা ঘুষ না দেয়ায় ঝরলো ১৮ তরতাজা প্রাণ!

পদ্মা সংবাদ ডেস্ক:
তিতাস গ্যাস সংযোগের লিকেজ থেকেই নারায়ণগঞ্জে মসজিদে নামাজ চলাকালে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। এদিকে মসজিদের গ্যাসের লাইনে লিকেজের বিষয়টি তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে জানানো হলে ঠিক করে দেওয়ার শর্তে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ চান। সেই ৫০ হাজার টাকা ঘুষ না দেয়ায় তারা মেরামত করেনি বলেও অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (০৫ সেপ্টম্বর) তল্লা এলাকায় সরেজমিনে বিভিন্নজনের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।এলাকার স্থানীয়রা বলেন, মসজিদটির নিচে তিতাস গ্যাস সংযোগে দীর্ঘদিন যাবত বেশ কয়েকটি লিকেজ থাকলেও সেগুলো মেরামত করা হয়নি। সেই লিকেজ থেকে নির্গত গ্যাস মসজিদের ভেতরে জমাট বেধে বিস্ফোরণ ঘটেছে। কেউ কেউ বলছেন, মসজিদ কমিটির নেতারা লিকেজের বিষয়টি আগে থেকেই জানতেন। কিন্তু তারা আমলে নেননি।আবার কারো কারো অভিযোগ, মসজিদ কমিটি তিতাস কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা পঞ্চাশ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করায় নেতারা পিছ পা হন। উভয়পক্ষের গাফিলতির কারণেই এত বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি এলাকাবাসীর। ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্স মহা-পরিচালক সাজ্জাদ হোসেনও লিকেজ থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন।শুক্রবার রাতে এশার নামাজ চলাকালে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটে নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে। এসময় মসজিদের ছয়টি এয়ারকন্ডিশন, অ্যাডজাস্ট ফ্যানগুলোসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ও জায়নামাজ পুড়ে যায়। অধিকাংশ সিলিং ফ্যান নষ্ট এবং দরজা জানালার সবগুলো কাঁচ ভেঙে টুকরো হয়ে মেঝেতে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়েছে। এই বিস্ফোরণে মুসুল্লিদের মধ্যে গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় ৩৭ জনকে ভর্তি করা হয় ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে। বিকেল পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮ জনে। এ ঘটনায় শোকের পাশাপাশি আতঙ্ক বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মধ্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish