May 12, 2021, 12:17 pm

দর্শনায় রােজার শুরুতেই সবজি বাজারে আগুন: প্রতি কেজি বেগুন ১২০-১৩০ টাকা

মোঃ আব্দুর রহমান অনিক ।।
রােজার শুরুতেই বেগুনের বাজারে লেগেছে আগুন । ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হওয়া বেগুন আজ শুক্রবার বিক্রি হয়েছে ১২০-১৩০ টাকায় । বেগুনের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি হওয়ায় বিপাকে পরেছেন সাধারণ মানুষ।
বেগুনের দাম সেঞ্চুরি পার হওয়ায় ক্রেতারা চরম ক্ষুব্ধ । এদিকে দর্শনা রেলবাজারে ক্রেতারা দৈনিক পদ্মা সংবাদ কে বলেন , ‘ দেশে কোনাে আইন – কানুন নেই । যে যার মতাে দাম বাড়াচ্ছে । কিছু দিনের ব্যবধানে কেজি প্রতি ৮০-৯০ টাকা বেড়েছে বেগুনের দাম , এটা কি হয় ? ব্যবসায়ীরা ইচ্ছা করে দাম বাড়াচ্ছে । রােজার মাসে এমন জুলুম আল্লাহ বরদাস্ত করবেন না । এদিকে ব্যবসায়ীরা বলছেন , প্রতিবারই রােজায় বেগুনের চাহিদা বাড়ে , এবারও তার ব্যতিক্রম নয় । তাছাড়া দেশে লকডাউন শুরু হয়েছে । বাজারে বেগুন সংকটে পড়েছে । ফলে বেগুণের দাম হু-হু করে বেড়েছে । আমাদের বেশি দামে বিক্রি ছাড়া উপায় নেই । বাজারে দেখা গেছে , আকারে ছােট ও মােটা বেগুন বিক্রি হচ্ছে ১২০-১৩০ টাকা কেজি দরে । এ প্রসঙ্গে ব্যবসায়ীরা বলেন , রােজা ও লকডাউনের কারণে বেগুনের দাম বেড়েছে । স্বাভাবিক দিনে এক – দুই মণ বেগুণ বিক্রি করি । দাম বেশি হওয়ায় এক মণ বেগুন বিক্রির জন্য এনেছি । বেশি দাম হলে বিক্রি হয় কম । বেগুন ক্রেতারা বলেন , ‘ বেগুনের তরকারি আমার প্রিয় । তবে বেগুনের দাম দেখে আর বেগুন কেনার ইচ্ছা নাই । বেগুনের তরকারি , বেগুন ভর্তা নিয়মিত খাই । কিন্তু রােজা আসায় ইফতারের জন্য বেগুনি বানানাে হয় , তাই দাম বেড়েছে হয়তাে।
এদিকে সরকার রমজানে ৬ পণ্যের দাম নির্ধারণ করে দিয়েছেন।
পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে নিত্যপ্রয়ােজনীয় ছয়টি পণ্যের দাম বেঁধে দিয়েছে সরকার । এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে কৃষি বিপণন অধিদফতর । বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে , স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজার পর্যালােচনা , সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী এবং সরকারি – বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে আলােচনা করে ছােলা , পেঁয়াজ , ভােজ্যতেল , মসুর ডাল , চিনি ও খেজুরের দাম নির্ধারণ করে দেওয়া হলাে । বেঁধে দেওয়া দাম অনুযায়ী পণ্য বিক্রি নিশ্চিত করতে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা বিঘ্নিত হচ্ছে । সব মিলিয়ে পণ্যের দাম কিছুটা বেড়েছে । রমজানে ৬ পণ্যের দাম নির্ধারণ সমন্বিতভাবে কাজ করবে । ‘ বেঁধে দেওয়া দাম অনুযায়ী খুচরা বাজারে ছােলা কেজিপ্রতি ৬৩ থেকে ৬৭ টাকা ,পেঁয়াজ ৪০ টাকা , ভােজ্যতেলের এক লিটারের বােতল ১৩৯ টাকা , পাঁচ লিটারের বােতল ৬৬০ টাকা , মােটা দানার মসুর ডাল ৬৭ থেকে ৬৯ টাকা ও সরু দানার ডাল ৯৭ থেকে ১০৩ টাকা , চিনির খুচরা মূল্য কেজিপ্রতি ৬৭ থেকে ৬৮ টাকা এবং সাধারণ মানের খেজুর কেজিপ্রতি ৮০-১০০টাকা ও মধ্যম মানের খেজুর ২০০-২৫০ টাকার বেশি বিক্রি করা যাবে না । বিজ্ঞপ্তিতে জানানাে হয় , রমজান মাসে প্রায় ৮০ হাজার টন ছােলা , তিন লাখ টন পেঁয়াজ , দুই লাখ টন ভােজ্যতেল , ৮০ হাজার টন মসুর ডাল , এক লাখ ৩৬ হাজার টন চিনি ও ৪০ থেকে ৫০ হাজার টন খেজুরের চাহিদা আছে ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ:
BengaliEnglish