September 26, 2022, 3:10 pm

নোয়াখালীতে প্রেম সংক্রান্ত ঘটনায় একজনকে কুপিয়ে হত্যা, আহত-৭

নোয়াখালী প্রতিনিধি-
নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে প্রেম সংক্রান্ত ঘটনায় মো: পারভেজ (২২) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রেমিকার বাড়ীর লোকজন।মো: পারভেজ উপজেলার আলাইয়াপুর ইউনিয়নের জুবখালী গ্রামের আবদুর রহিমের ছেলে এবং পেশায় একজন দর্জি। এ ঘটনায় প্রেমিকার বাড়ির লোকজনের হামলায় আরো ৭ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলো- জিহাদ (২৮), জাহেদ (২৪), জুয়েল (২৪), নানিক (২৫), রিয়াদ (৩০), ফরহাদ (২৫) ও আজাদ (৩০)।
মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার ছয়ানী ইউনিয়নের রুদ্রপুর গ্রামের পাঁচ বাড়িয়া এলাকার কুলা বেপারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত পারভেজ এর বন্ধু সুজন (১৮) কে সোমবার সন্ধ্যায় তার প্রেমিকা স্বপ্না আক্তার ফোন করে তাদের বাড়ীতে ডেকে নিয়ে যায়। সুজন প্রেমিকার বাড়িতে যাওয়ার পর প্রেমিকার বাবা শাহ আলম ও এলাকার লোকজন তাকে আটক করে এবং দশ লক্ষ টাকা দাবী করে। অন্যথায় তাদের মেয়েকে বিয়ে করার জন্য চাপ দেয়। ঘটনাটি সুজন তার এলাকার লোকজনকে জানালে, সুজনের ভাইসহ এলাকার লোকজন রাতেই প্রেমিকার বাড়িতে যায়। কিন্তু প্রেমিকার বাড়ির লোকজনের দাবী দাওয়ার কাছে পরাস্থ হয়ে তারা সুজনকে রেখেই ফিরে আসে।
পরবর্তীতে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সকালে সুজনের ভাইসহ এলাকার লোকজন পুনরায় প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে সুজনকে ছাড়িয়ে আনার চেষ্টা করলে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রেমিকার বাড়ির লোকজন প্রেমিক সুজনের পরিবারের উপর ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে। এতে প্রেমিক সুজনের বন্ধু মো: পারভেজ বুকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে এবং ঘটনাস্থলেই মারা যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মো: পারভেজকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর পরই প্রেমিকা স্বপ্না আক্তারসহ তার পরিবারের লোকজন পালিয়ে যায়।
বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ কারুজ্জামান সিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উক্ত ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

     আরও সংবাদ :